Saturday, 24 August, 2019
শিরোনাম
Home / শিক্ষা / শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে মন্ত্রণালয়ের নতুন নির্দেশনা

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে মন্ত্রণালয়ের নতুন নির্দেশনা

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে নতুন নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। প্রতি সপ্তাহের রোববার পরিচ্ছন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বাস্তবায়নের অগ্রগতির প্রতিবেদন পরিচালনা পরিষদের সভাপতি বা সদস্যের মাধ্যমে প্রত্যয়ন করে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।প্রতিষ্ঠান প্রধানদের এ প্রতিবেদন পাঠাতে বলা হয়েছে।

এসডিজি-৪ অর্জনের জন্য মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন, স্বাস্থ্যসম্মত ও পরিবেশ বান্ধব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলতে গত ২৭ জানুয়ারি একারো দফা নির্দেশনা দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এসব নির্দেশনা বাস্তবায়ন ও মনিটরিংয়ের জন্য ১ এপ্রিল ৫ দফা নির্দেশনা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত পরিপত্র জারি করা হয়েছে।

২৭ জানুয়ারি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দেয়া নির্দেশনাগুলোর মধ্যে রয়েছে, শিক্ষার্থীদের পরিষ্কার পোশাক পরতে উৎসাহিত করা, পরিচ্ছন্ন ব্যাগ, টিফিন বক্স ও পানির পাত্র ব্যবহারে উদ্বুদ্ধকরণ, শ্রেণিকক্ষে প্রবেশ পথে পাপোস ব্যবহার, শ্রেণি কক্ষের সামনে ঢাকনা যুক্ত ময়লা ফেলার ডাস্টবিন রাখা, নির্ধারিত স্থানে ময়লা ফেলতে শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করা, ছুটির পর আবশ্যিকভাবে ময়লা ফেলার পাত্রগুলো পরিষ্কার করা, শিক্ষার্থীদের প্রবেশের পূর্বেই চেয়ার, টেবিল, বেঞ্চ ও বোর্ড পরিষ্কার করা এবং বিষয়গুলো পর্যবেক্ষণে ক্লাস মনিটর মনোনয়ন দেয়া।

এছাড়া পরিপত্রে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা, ছেলে মেয়েদের পৃথক ওয়াশব্লকের ব্যবস্থা করা, মেয়েদের ওয়াশব্লক থেকে সেনিটারি ন্যাপকিন অপসারণের ব্যবস্থা করা এবং ওয়াস ব্লকের পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করতে বলা হয়েছিল।

পরিচ্ছন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিশ্চিত করতে এ কার্যক্রমগুলো বাস্তবায়নে ১ এপ্রিল ৫ দফা নির্দেশনা জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ নির্দেশনাগুলোতে বলা হয়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা পরিচ্ছন্নতা সম্পর্কিত পরিপত্রের নির্দেশনা বাস্তবায়নের অগ্রগতির প্রতিবেদন পরিচালনা পর্ষদ বা ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি বা সদস্য কর্তৃক প্রত্যয়ন করে প্রতি রোববার উপজেলা বা থানা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে পাঠাতে হবে। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ই-মেইলে সে প্রতিবেদন জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে এবং জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা তা মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের কাছে পাঠাবেন। এছাড়া সবুজ ও পরিচ্ছন্ন স্কুল ওয়েব পেইজে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচ্ছন্নতার তথ্যাদি আপলোড করতে হবে।

পরিচ্ছন্ন ক্যাম্পাস নিশ্চিত করতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দেয়া নির্দেশনাগুলো বাস্তবায়ন করা হচ্ছে কিনা তা বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিয়মিত পরিদর্শন করে প্রতিবেদনে অন্তর্ভুক্ত করতে বলা হয়েছে- উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসক ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকদের। পরিচ্ছন্ন পরিবেশ নিশ্চিত করতে শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করতে অভিভাবক সমাবেশের আয়োজন করতে বলা হয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে। এদিকে, সরকারি কর্মকর্তা মাঠ পর্যায়ের পরিদর্শনকালে কমপক্ষে দুইটি প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করতে বলা হয়েছে। পরিদর্শনের সময় সব শিক্ষক উপস্থিত আছেন কিনা এবং পরিচ্ছন্নতা সম্পর্কিত নির্দেশনা বাস্তবায়ন হচ্ছে কিনা তা কর্মকতাদের পর্যবেক্ষণ করতে এবং প্রতিবেদনে লিখতে বলা হয়েছে।

About Orrko Khan

Founder and CEO

Check Also

‘ইংলিশ’ বানান পারলেন না শিক্ষিকা, প্রতিমন্ত্রীর ক্ষোভ

জেলার রৌমারী উপজেলার রৌমারীর চরগেন্দার আলগা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঘুঘুমারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং উলিপুর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *