Friday, 23 August, 2019
শিরোনাম
Home / বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি / গুগল-ফেসবুককে বোকা বানিয়ে ১২ কোটি মার্কিন ডলার লোপাট

গুগল-ফেসবুককে বোকা বানিয়ে ১২ কোটি মার্কিন ডলার লোপাট

এক নামে সারা বিশ্বে পরিচিত গুগল-ফেসবুক। ব্যবহারকারীদের সুরক্ষা দিতে চেষ্টার অন্ত নেই প্রতিষ্ঠান দু’টির। আর সেই দুই প্রতিষ্ঠানকেই বোকা বানিয়ে ১২.২ কোটি মার্কিন ডলার হাতিয়ে নিয়েছেন লিথুয়ানিয়ার এক ব্যক্তি। বাংলাদেশি টাকায় এর পরিমাণ হাজার কোটি টাকার বেশি।

২০১৩ সাল থেকে শুরু করে ২০১৫ সাল পর্যন্ত সময়ে ইভালদাস রিমাসস্কাস নামের এই ব্যক্তি ফেসবুক আর গুগলে কাছে ভুয়া চালান (ইনভয়েস) পাঠিয়ে এ দুই প্রতিষ্ঠান থেকে এ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। গুগল-ফেসবুক কখনও যেসব জিনিস কেনেইনি ইনভয়েসগুলোর মাধ্যমে সেসব জিনিসের টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন তিনি।

ধরা পড়ার পর নিউ ইয়র্কে সোমবার বিচারে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন তিনি। ২৪ জুলাই তার সাজা ঘোষণা হবে। ৫০ বছর বয়সী ইভালদাসের সর্বোচ্চ ৩০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে।

মার্কিন প্রসিকিউটরদের তথ্য অনুযায়ী, এই ইভালদাস ও অন্য আরেক ব্যক্তি এশিয়ান হার্ডওয়্যার বিক্রেতা সেজে গুগল-ফেসবুকের কাছে অর্থ দাবি করেন।

হার্ডওয়্যার বিক্রির ভুয়া চালানের সাথে প্রয়োজনীয় অন্যসব জাল কাগজপত্রও পাঠাতেন ইভালদাস।

তাইওয়ান ভিত্তিক কোয়ান্টা কম্পিউটার ইনকর্পোরেশনের নামে নিজে ভুয়া কোম্পানি খুলে নিবন্ধন করেন তিনি। আসল কোয়ান্টা কম্পিউটার ক্যালিফোর্নিয়ার বিভিন্ন কোম্পানির সঙ্গে আগে বাণিজ্য করেছে।

এই প্রতিষ্ঠানের নামে ভুয়া চালান পাঠিয়ে ফেসবুকের কাছ থেকে ৯৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ও গুগলের কাছ থেকে ২৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার হাতিয়ে নিয়ে লাটভিয়া, সাইপ্রাস, স্লোভাকিয়া, লিথুয়ানিয়া, হাঙ্গেরি ও হংকংয়ের বিভিন্ন ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা করেন তিনি।

২০১৭ সালে লিথুয়ানিয়াতে গ্রেফতার হওয়ার পর বিচারের জন্য তাকে যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দেয়া হয়। আদালতের নথি অনুযায়ী, তিনি ৪৯.৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ফিরিয়ে দিতে সম্মত হয়েছেন। বাকি ৭৫ মিলিয়ান মার্কিন ডলারের কী হয়েছে সে বিষয়টা পরিষ্কার নয়।

About Orrko Khan

Founder and CEO

Check Also

বাংলাদেশে ফেসবুক নিষিদ্ধ হতে পারে: জাকারবার্গকে মোস্তফা জব্বার

বাংলা ভাষাকে যারা সঠিক ও শুদ্ধভাবে প্রয়োগ করবে না তাদের কে কোন ছাড় দেয়া হবেনা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *